মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

মুক্তিযুদ্ধে কিশোরগঞ্জ সদর

বাংলাদেশের এমন কোন জনপত নেই, ১৯৭১ সালে যেখানে হানাদার পাকবাহিনী বাংগালীদের নির্বিচারে হত্যা করেনি। লুন্ঠন, অগ্নিসংযোগ, নারী নির্যাতন এ সবই ছিল দখলদার পাকবাহিনীর ৯মাসের নৈমিত্তিক কাজ। মুক্তিযুদ্ধে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ অংশগ্রহণকারী প্রতিটি মানুষের স্ব স্ব ক্ষেত্রের অবদান মুক্তিযুদ্ধকে করেছে মহিমান্বিত ।মুক্তিযুদ্ধ এ জন্য বাংগালীর শ্রেষ্ট বীরত্বগাথা। মহান যুক্তিযুদ্ধে সদর উপজেলার বীরমুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিকামী জনতার উল্লেখযোগ্য অবদান ছিল। অগনিত সাধারণ মানুষ মুক্তিযুদ্ধে অকাতরে আত্মাহুতি দিয়েছেন।সদর উপজেলাধীন বত্রিশ মনিপুরঘাট ও মুকসেদপুরস্থ বড়পুলের নিকট বধ্যভূমি রয়েছে। তাছাড়া মহিনন্দ ইউনিয়নের ক্ষিরদগঞ্জ বাজারের নিকট ও কর্শাকড়িয়াইল ইউনিয়নে বড়ইতলা নামক স্থানে বধ্যভুমিতে জেলা পরিষদের অর্থায়নে স্মৃতিসেৌধ নির্মান করা হয়েছে। এ উপজেলায় মোট ৭টি বধ্যভূমি রয়েছে।